TikTok বনাম ট্রাম্প !

admin

Administrator
Staff member
Jul 14, 2020
50
6
8
tiktok-vs-trump.jpg
সোশ্যাল মিডিয়াতে যারা কম বেশি আপডেট রাখেন নিজেকে তারা বিগত কয়েক মাস যাবৎ লক্ষ্য করছেন TikTok নামক একটি এপ এর ভিডিওর কিছু অংশ বিশেষ বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে, মূলত এই এপটি ইউটিউব এর মতন কাজ করে, এতে ইউজার রা ঠোঁট মিলিয়ে থাকেন গানের অথবা কোনো সংলাপের অংশ বিশেষের সাথে, এই এপটি এর আগেও বহুবার বহুভাবে বাজারে এসেছে, তবে একেকবার একেক নাম ব্যবহার করে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে তরুণদের মাঝে।


এরই প্রেক্ষিতে সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আমেরিকা থেকে টিকটকে নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনার কথা জানিয়ে দিয়েছেন, ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকর্তারা ক্রমশ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন যে চীন সরকার আমেরিকান যারা TikTok ব্যবহার করে তাদের মাধ্যমে দেশের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চুরি হয়ে যেতে পারে।


বিশেষজ্ঞদের মতে, এখানে দুটো কারণ কাজ করতে পারে. প্রথমত হলো TikTok একটি চীনা কোম্পানি, যার নাম ByteDance, আর বরাবরের মতোই ট্রাম্প চীনকে কিছুটা বাঁকা চোখে দেখেন, আর করোনা মহামারীর পর আরো বেশি বাঁকা চোখে দেখতে শুরু করেছেন, অন্য আরেকটি কারণ হতে পারে চীন বিভিন্ন ভাবে ট্রাম্প এডমিনিস্ট্রেশন এর নজরে এসেছে যা দেশটির হুমকির কারণ হতে পারে, ট্রাম্প অফিসিয়াল জানিয়েছে TikTok ইউজারদের মাদ্ধমে চীনা সরকার দেশটির গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে, কিন্তু TikTok থেকে বরাবরই নাকচ করে দেয়া হচ্ছে এমন সংবাদের, এমন কোনো কিছুই তারা করছেন না তারা সাফ জানিয়েছে।


তবে ট্রাম্প নেতৃত্বাধীন হোয়াইট হাউস এই কাজ এই প্রথম করছেন না এর আগেও এমন প্রশ্ন তুলেছেন তারা অনেক চীনা প্রতিষ্ঠানের প্রতি, এর আগে চাইনিজ আরো দুটি কোম্পানি এমন বিডম্বনার শিকার হয়েছেন এর একটি হলো হুয়াওয়েই এবং অন্যটি হলো জেট টি ই, এই দুটি চীনা সংস্থা যারা কিনা মোবাইল ফোন নেটওয়ার্কের জন্য সরঞ্জাম তৈরি করে। আর এইবার এই লড়াইয়ে নতুন করে শামিল হয়েছে TikTok মোবাইলে এপ।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প জানাতে পারেননি আসলে ঠিক কিভাবে তিনি এই কাজটি করতে পারেন এবং কতটা যুক্তিযুক্ত, উত্তরে সঠিক ভাবে কিছু জানাতে না পারলেও তিনি জানিয়েছেন তিনি এটা করবেন এবং তিনি একটি নির্বাহী আদেশ দিয়ে এটি করতে পারেন।

তবে মজার ব্যাপার হলো একটি বিবৃতিতে টিকটকের একজন মুখপাত্র উল্লেখ করেছেন যে, TikTok তাদের সমস্ত ডাটা যুক্তরাষ্ট্রেই সংরক্ষণ করে থাকেন এবং এর যাবতীয় তথ্যের সুরক্ষার জন্য TikTok অনেক কঠোর নিরাপত্তা ব্যবহার করে থাকেন যাতে করে যে কেও এর এক্সেস নিতে না পারেন, আর এটি যুক্তরাষ্ট্র খুব ভালো ভাবেই জানেন।