ইমেইল যেন না হয় আপনাকে ব্ল্যাকমেইলের কারণ!

admin

Administrator
Staff member
Jul 14, 2020
50
6
8
EmailSpam.jpg
প্রযুক্তি যেমন হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে পুরো বিশ্বকে। তেমনি করে সেই প্রযুক্তির অপব্যবহার ও বেড়েছে সমানতালে। বর্তমান বিশ্বে যোগাযোগ ব্যবস্থা থেকে শুরু করে এমন কোনো জিনিস নেই যাতে কম বেশি প্রযুক্তির ছোয়া লাগেনি। এখন সামাজিক যোগাযোগের জন্য আমাদের নির্ভর করতে হয় ইন্টারনেটের উপর। কম বা বেশি দূরত্বের সব মানুষকে আমরা এখন পেয়ে যাচ্ছি একটি ক্লিক এর মাধ্যমেই। সুবিধা যেমন আমরা পাচ্ছি তেমনি ভাবে পোহাতে হচ্ছে নানাবিধ অসুবিধা।


ইন্টারনেট ব্যবহার কালে অসতর্কতা বশত আমরা ভুলে যাই স্প্যামার বা হ্যাকাররা ওঁৎ পেতে থাকে ইন্টারনেটের দুনিয়ায় প্রতিনিয়ত। ফলে হারিয়ে ফেলতে বসি আমাদের মুঠোফোন বা কম্পিউটার এর সব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। এবং পড়তে পারি আরো নানাবিধ অসুবিধায়।

অনেক সময় স্প্যামার বা হ্যাকাররা আপনার ইমেইলে বিভিন্ন মেইল পাঠিয়ে এই কাজটি করার চেষ্টা করে থাকে। মেইলে বিভিন্ন ভাবে বুজানোর চেষ্টা করা হয় আপনার সব কিছু হ্যাক হয়েছে । মাঝে মাঝে তো তারা আপনার গোপন পাসওয়ার্ডও আপনাকে মেইলে জানিয়ে দেয় যাতে আপনি বিশ্বাস করেন আপনার সকল কিছু তাদের আয়ত্তে চলে গেছে।

বর্তমান মহামারীর এই সময়টাতে এই হ্যাকাররা মাথা ঝেঁকে বসেছে কিছুটা। নানান ভাবেই তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়ার জন্য। কখনোবা তারা এর জন্য ব্যবহার করছে ইমেইল। আবার কখনো বা আশ্রয় নিচ্ছে বিভিন্ন ওয়েবসাইটের। কিন্তু তাদের উদ্দেশ্য একটাই।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন। হ্যাকাররা এই ক্ষেত্রে হিউমেন সাইকোলোজিকে ভালোভাবে কাজে লাগাচ্ছেন। এক্ষেত্রে তারা ইউজারকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি প্রদান করে থাকে। কখনোবা ইউজারের পরিচিত মানুষজনকে তার গোপন কোনো তথ্য ফাঁস করে দেয়ার ভয় দেখিয়ে বা কখনো আপত্তিকর কোনো ছবি ভাইরাল করে দেয়ার হুমকি দেখিয়ে ভীতি প্রদর্শন করে থাকেন।

এই ক্ষেত্রে আমরা কিছু সতর্কতা অবলম্বন করতে পারি যাতে এই সমস্যা থেকে কিছুটা দূরে থাকতে পারি -

প্রথমত ভয়ে ঘাবড়ে যাবেন না এমন কোনো বার্তা পেয়ে। অনেকসময় তারা অযথা মিথ্যে বলে আপনাকে মানসিকভাবে দুর্বল করে তার আয়ত্তে নিয়ে যেতে চাইবে। তাদের লক্ষ্য হলো আপনার থেকে অর্থ আদায় করে নেয়া, অন্য কিছুই সে আপনার করতে পারবেনা। বিভিন্ন সময় তারা ইমেইল এড্রেস ও পাসওয়ার্ড এর ডাটাবেস পেয়ে থাকে যাতে করে সেখান থেকে ইমেইল এড্রেস নিয়ে আপনাকে এই ধরণের স্প্যাম এর মেইল পাঠায়। সুতরাং ঘাবড়ে গিয়ে যা বলবে তা করে বসবেন না।


এমনটা হয়ে থাকলে যতদ্রুত সম্ভব আপনার সমস্ত পাসওয়ার্ড বদলে ফেলুন নিজের সুরক্ষার জন্য। এতে করে অনেকটাই নিরাপদ হয়ে যেতে পারবেন। মনে রাখবেন সব জায়গায় একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা ঝুঁকিপূর্ণ । মিক্স ক্যারেক্টার ও স্পেশাল কী ব্যবহার করুন। যাতে সহজেই অনুমান করা না যায় আপনার পাসওয়ার্ডটি।


স্প্যামের মেইলের কখনো রিপ্লায় দিতে যাবেন না। এতে করে বাড়তি ঝামেলায় পড়বেন। এমন হলে দ্রুত অভিজ্ঞ কারো পরামর্শ নেয়া বুদ্ধিমানের কাজ। এছাড়াও কোনো চটকদার। এডাল্ট কন্টেন্ট। লটারি। অপ্রয়োজনীয় লিংক এ প্রবেশ থেকে বিরত থাকুন সবসময়।